অনুমতি পেল স্পর্শিয়ার সিনেমা কাঠবিড়ালি, ডিসেম্বরেই মুক্তি

প্রকাশিত: 12:05 PM, December 13, 2019

 বিনোদন ডেস্ক: সেন্সর ছাড়পত্র পেয়েছে অর্চিতা স্পর্শিয়া অভিনীত চলচ্চিত্র ‘কাঠবিড়ালী’। এখন আর প্রেক্ষাগৃহে মুক্তিতে বাধা রইল না ছবিটির। পরিচালক নিয়ামুল মুক্তা জানান, চলতি ডিসেম্বরেই মুক্তি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি দেয়া হবে ‘কাঠবিড়ালী’।

গত মঙ্গলবার (১০ ডিসেম্বর) দুপুর থেকে ছবিটি দেখেন সেন্সর বোর্ডের সদস্যরা। বিকেলে বিনা কর্তনে ছাড়পত্র দেয়া হয় বলে নিশ্চিত করেছেন ছবির পরিচালক মুক্তা।

তিনি বলেন, ‘রোববার সেন্সরে জমা দিয়েছিলাম। মঙ্গলবার ছবিটি সেন্সর ছাড়পত্র পেয়েছে। বোর্ডের সদস্যরা প্রশংসা করেছেন ছবিটির।’

পরিচালকের প্রথম ছবি এটি। এতে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন অর্চিতা স্পর্শিয়া। তার বিপরীতে অভিনয় করেছেন আসাদুজ্জামান আবীর ও সাইদ জামান শাওন। ছবিটিতে আরও অভিনয় করেছেন শাহরিয়ার ফেরদৌস সজিব, শিল্পী সরকার অপু, হিন্দোল রায়, এ কে আজাদ সেতু, তানজিনা রহমানসহ অনেকে। নিয়ামুল মুক্তার নিজস্ব প্রযোজনা সংস্থা ‘চিলেকোঠা ফিল্মস’ এর ব্যানারে নির্মিত হয়েছে ‘কাঠবিড়ালী’।

এর আগে চিলেকোঠার ইউটিউব চ্যানেলে ১ মিনিট ১৮ সেকেন্ডের টিজার প্রকাশ হয় ছবিটির। ওই টিজারে পাবনার ভাঙ্গুরার গজারমারা গ্রামে শুটিং হওয়া ছবিটির গল্পের গভীরতার কিছুটা ইঙ্গিত দেয়া হয়েছে। যাতে দেখানো হয়েছে মানব-মানবীর চিরায়ত সম্পর্কের নাটকীয়তা।

এদিকে সেন্সর বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান নিজামুল কবীরও সেন্সর পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘সদস্যদের সঙ্গে বসে ছবিটি দেখেছি। ভালো গল্পের ছবি। নির্মাণও চমৎকার। আমরা এই সিনেমার সাফল্য কামনা করি।’

সেন্সর বোর্ডের অন্যতম সদস্য ও প্রযোজক সমিতির সভাপতি খোরশেদ আলম খসরুও ছবিটির ভূয়সী প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, ‘নির্মাতার প্রথম ছবি এটি। প্রথম ছবিতেই দারুণ গল্প বলতে পেরেছেন তিনি। স্পর্শিয়াও দারুন অভিনয় করেছেন। ছবিটির প্রতি আমার শুভ কামনা থাকল।’

সেন্সর বোর্ডের আরেক সদস্য অভিনেত্রী অরুনা বিশ্বাস বলেন, ‘সত্যিই কাঠবিড়ালী ছবি দেখে আমি ব্যক্তিগতভাবে মুগ্ধ। গ্রামে শুটিং হয়েছে ছবিটির। দারুণ সব লোকেশন। গল্পটিও চমৎকার। পরিচালকের প্রথম ছবি হলেও বেশ মুন্সিয়ানা দেখিয়েছে সে।’

তাসনিমুল তাজের চিত্রনাট্যে এবং নিয়ামুল মুক্তার রচনা ও পরিচালনায় ২০১৭ সালের ২ মার্চ শুরু হয় ‘কাঠবিড়ালী’ চলচ্চিত্রের শুটিং। নানা ধাপে টানা দুই বছর চিত্রায়নের পর এবার পেল সেন্সর সনদ।