ফরিদপুরে দু’পক্ষের সংঘর্ষে একজন নিহত। ২০ জন আহত

প্রকাশিত: 8:58 PM, May 19, 2020

ধলাই ডেস্ক: ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার রূপাপাত ইউনিয়নের রূপাপাত গ্রামে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে বাকিয়ার শেখ (৪০) নামে একজন নিহত হয়েছেন। তিনি ওই গ্রামের আলেক শেখের ছেলে।

সংঘর্ষে আরও ২০ জন আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার (১৯ মে) বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

রূপাপাত ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সহসভাপতি মোশাররফ মাস্টার ও বিএনপি সমর্থিত ৮নং ওয়ার্ডের মেম্বার ইলিয়াসের পক্ষের সংঘর্ষের সময় ঘরবাড়ি ভাঙচুর, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগ করা হয়।

বোয়ালমারী থানা পুলিশ ও ডহরনগর ফাঁড়ি পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে পুলিশ কয়েক রাউন্ড শটগানের গুলি ছোড়ে।

বর্তমানে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (মধুখালী সার্কেল) মো. আনিসুজ্জামান লালন ও বোয়ালমারী থানার ওসি মো. আমিনুর রহমানসহ কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে রয়েছেন।

এদিকে এ ঘটনায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর মিজানুর রহমানসহ কয়েকজনকে আটক করেছে পুলিশ।

উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সৈয়দ রাসেল রেজা বলেন, প্রফেসর মিজানুর রহমান বোয়ালমারী থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। পুলিশ শুধু শুধু তাকে আটক করেছে। তিনি এই ঘটনার কিছুই জানতেন না।

বোয়ালমারী থানার ওসি মো. আমিনুর রহমান মুঠোফোনে বলেন, বেশকিছু বাড়িঘরে ভাঙচুর, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে। তবে এই মুহূর্তে কোনো হিসাব দেয়া সম্ভব না। কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে। সংঘর্ষে একজনের মৃত্যুর বিষয়টি তিনি নিশ্চিত করেছেন।

 

সূত্র: জাগো নিউজ…