বন্ধ দোকানের টয়লেট থেকে বের হলেন ২০ ক্রেতা

প্রকাশিত: 9:29 PM, May 19, 2020
ছবি সংগৃহীত

ধলাই ডেস্ক: বরিশালে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে লকডাউন ঘোষণা ও সব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করেছে জেলা প্রশাসন। এত কিছুর পরও বন্ধ হচ্ছে না মার্কেট-শপিংমল ও ঈদের কেনাকাটা।

পদ্ধতি পাল্টে দোকান বাইরে থেকে বন্ধ করে ভেতরে দেদারসে চলছে বেচাকেনা। মঙ্গলবার নগরীর চকবাজারে একটি বন্ধ দোকানের টয়লেট থেকে ২০ জন নারীপুরুষকে বের করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রুমানা আফরোজ জানান, চকবাজারের নিউ বিশ্বশ্রী নামে একটি বন্ধ দোকানের অভিযান চালানো হয়। ওই সময় দোকানের ভেতরে কোনো ক্রেতা পাওয়া যায়নি। দোকানের শেষ প্রান্তে তালা দেয়া একটি কক্ষ ছিল। জানতে চাইলে দোকান মালিক বলেন ওটা টয়লেট।

তিনি আরো জানান, কথিত টয়লেটের তালা খুলে দেখা গেছে, সেট একটি শাড়ির শো-রুম। আর সেখানে কেনাকাটা করছে ২০ জন নারী-পুরুষ। এ ঘটনায় ওই দোকান মালিককে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের আরেক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাজমুল হুদা জানান, এ দিন নগরীর একাধিক এলাকায় অভিযান চালিয়ে জনসমাগম ঠেকাতে মাইকিং করা হয়েছে। নির্দেশনা অমান্য করায় কয়েকজন দোকান মালিককে জরিমানা করা হয়েছে।

বরিশালের ডিসি এস.এম অজিয়র রহমান জানান, মার্কেট-শপিংমল বন্ধ ঘোষণা করে ব্যবসায়ীদের সতর্ক করা হয়েছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে ব্যবসায়ী ও ক্রেতাদের নিয়ন্ত্রণ করা হবে। কেউ নির্দেশনা অমান্য করলে আইনের আওতায় আনা হবে।