বিয়ে বাড়ির গেট নিয়ে সংঘর্ষে আহত ১০

প্রকাশিত: 8:11 PM, November 21, 2019
ছবি সংগৃহিত

ধলাই ডেস্ক: বিয়ে বাড়িতে গেট নির্মাণকে কেন্দ্র করে লক্ষ্মীপুরে দুই পক্ষের সংঘর্ষে নারী-পুরুষসহ অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। এ ঘটনা ঘটে বৃহস্পতিবার দুপুরে সদর উপজেলার তেওয়ারীগঞ্জের চরমনসা গ্রামে ।

আহতরা হলেন শাফি উল্যা, তার স্ত্রী মোবাশ্বেরা, ছেলে মমিন উল্যা, নাতি রাসেল ও শহিদ এবং অপর পক্ষের রহমত উল্যা, দেলোয়ার হোসেনসহ আরও অন্তত ৩/৪ জন। আহতরা স্থানীয় ক্লিনিকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

এ ঘটনায় আহত মমিন উল্যা বাদী হয়ে সদর মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, চরমনসা গ্রামের মো. মমিনের ছেলে জাকির হোসেনের শুক্রবার বিয়ের অনুষ্ঠান রয়েছে। এ উপলক্ষে বাড়ির সামনে তোরণ স্থাপন করতে গেলে প্রতিবেশী বৃদ্ধ শাফি উল্যা ও তার স্ত্রী মোবাশ্বেরা বেগম এতে বাধা দেন। এ নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে কথা-কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে জাকিরের বন্ধু রহমত উল্যা বৃদ্ধকে ধাক্কা দিলে উভয় পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে অন্তত ১০ জন আহত হয়।

থানায় অভিযোগকারী মমিন উল্যা বলেন, জাকিরদের সঙ্গে জমি নিয়ে আমাদের আদালতে মামলা চলছে। তাই তোরণ নির্মাণ গেলে আমার বাবা-মা বাধা দেয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে জাকিরসহ তার বন্ধুরা আমাদের ওপর হামলা করে।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে আহত রহমত উল্যা বলেন, আমি কাউকে মারিনি। উভয়পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়লে আমি ছাড়াতে যাই। কিন্তু দুই পক্ষের হামলায় আমি আহত হই।

লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোসলেহ উদ্দিন বলেন, এ ঘটনায় একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।