বেলুনে চড়ে মহাকাশ ভ্রমণ, সময় লাগবে ৬ ঘণ্টা

প্রকাশিত: 6:20 PM, June 22, 2020
ছবি সংগৃহীত

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক: বেলুনে চড়ে মহাকাশ ভ্রমণ—অবাক করার মতো বিষয়। আমেরিকার ‘স্পেস পারস্পেকটিভ’ নামের একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান এই সুযোগ নিয়ে আসছে। এটিকে মহাকাশ পর্যটনে নতুন দিগন্ত বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

পৃথিবীর আবহাওয়া মন্ডলের তিনটি স্তর রয়েছে। প্রথম স্তর ট্রপোস্ফিয়ার, দ্বিতীয় স্তর স্ট্র্যাটোস্ফিয়ার ও তৃতীয় স্তর মেসোস্ফিয়ার হিসেবে পরিচিত। ‘স্পেশশিপ নেপচুন’ নামের ওই বেলুনে চড়ে পৃথিবী থেকে ১ লাখ ফুট উপরে স্ট্র্যাটোস্ফিয়ারে গিয়ে মহাকাশের সৌন্দর্য্ উপভোগ করতে পারবেন পর্যটকরা।

জানা গেছে, বিশাল একটি বেলুনে একটি ক্যাপসুল তৈরি করা হবে। এক বেলুনে ৮ জন পর্যটক উঠতে পারবেন, যা ঘণ্টায় ১২ মাইল বেগে ধীর গতিতে উড়ে যাবে। মার্কিন মহাকাশ সংস্থা নাসার কেনেডি স্পেস সেন্টার থেকে হাইড্রোজেন পূর্ণ এই বেলুন যাত্রা শুরু করবে। ধারণা করা হচ্ছে, ৬ ঘণ্টায় পুরো ভ্রমণ সম্পন্ন করা সম্ভব হবে।

মহাকাশে বেলুনটি ঠিক আটলান্টিক মহাসাগরের উপরে গিয়ে অবস্থান করবে। যদি কোনো দুর্ঘটনা ঘটে? সেজন্য যাত্রীদের নিরাপত্তার জন্য থাকবে একটি জাহাজ। জানা গেছে, অনেক সুযোগ-সুবিধা থাকবে এই বেলুনে। বিশেষ করে একটি বার ও রেস্টরুমের উল্লেখ করেছে স্পেস পারস্পেকটিভ।

খুব বেশি দেরি নয়, আগামী বছর এই বিশেষ পর্যটন বেলুন নিয়ে পরীক্ষা চালানো হবে। তবে বাণিজ্যিকভাবে এই বেলুন মহাকাশে যাবে ২০২৪ সালে। জানা গেছে, এতো উপরে উঠে পর্যটকরা নিজেদের ওজন কম অনুভব করলেও প্রায় পৃথিবীর মতোই আবহাওয়া উপভোগ করতে পারবেন।