মেয়েকে ধর্ষণ, কারাগারে বাবার ঝুলন্ত লাশ

প্রকাশিত: 3:14 PM, November 14, 2020
ফাইল ছবি

ধলাই ডেস্ক: বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে এক হাজতির ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি ফাঁস দিয়েছেন বলে জানিয়েছে কারা কর্তৃপক্ষ।

প্রতিবন্ধী মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে স্ত্রীর দায়ের করা মামলায় মো. হানিফ খলিফা কারাগারে ছিলেন। শুক্রবার রাতে তিনি কারাগারের টয়লেটে ফাঁস দেন।

হানিফ খলিফা বরিশালের বাকেরগঞ্জের মধুখালী গ্রামের আলী মোহাম্মদ খলিফার ছেলে। তিনি বরিশাল নগরীর ২৮ নম্বর ওয়ার্ডের চহুৎপুর এলাকায় পরিবার নিয়ে থাকতেন।

কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার প্রশান্ত কুমার বনিক জানান, প্রতিবন্ধী মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে হানিফ খলিফার স্ত্রী ৩০ সেপ্টেম্বর বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের বিমানবন্দর থানায় মামলা করেন। পুলিশ তাকে গ্রেফতার করলে ১ অক্টোবর থেকে হানিফ খলিফা বরিশাল কারাগারে হাজতি হিসাবে ছিলেন। ডিএনএ টেস্টের জন্য বাইরে নেয়ার পর কারাগারে হানিফকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছিল।

জেল সুপার আরো বলেন, শুক্রবার রাত ৩টায় মশারির রশি ছিঁড়ে টয়লেটে ঢুকে পানির পাইপের সঙ্গে ফাঁস দেন হানিফ। শনিবার সকালে তার মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।