শ্রীলংকার শর্তে টেস্ট খেলা সম্ভব নয়: পাপন

প্রকাশিত: 5:29 PM, September 14, 2020
সংগৃহীত

খেলা ডেস্ক: টাইগারদের শ্রীলংকা সফর নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে। দেশটির ক্রিকেট বোর্ড কোয়ারেন্টাইন শর্ত, খেলোয়াড় কম নেয়ার শর্ত, সঙ্গে নিরাপত্তা দল নেয়া সহ নানান শর্ত দিচ্ছে। এতো শর্ত মেনে শ্রীলংকা সফর সম্ভব নয় বলে জানিয়ে দিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

রোববার মিরপুর বিসিবি কার্যালয়ে বোর্ড সভাপতি সাংবাদিকদের এমনটাই বলেন।

তিনি বলেন, আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে, এইরকম শর্ত মেনে আমরা সেখানে সিরিজ খেলতে যেতে পারব না। আমরা শ্রীলংকা বোর্ডের কাছে চিঠি পাঠিয়েছি। আমাদের সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিয়েছি যে, এমন শর্ত মেনে আমরা সিরিজ খেলতে যেতে পারব না। দেখা যাক চিঠির উত্তরে তারা কী জানায়।

তিনি আরো বলেন, সেখানে আমাদের দুইটি টিম (জাতীয় দল ও এইচপি দল) নিয়ে যেতে হবে। মেডিকেল টিম আছে, সিকিউরিটি টিম আছে। ৬০-৭০ জনের একটা টিম নিয়ে তো সেখানে তাদের শর্ত মেনে সিরিজ খেলতে যাওয়া সম্ভব না।

শ্রীলংকা ক্রিকেট বোর্ডের শর্ত হলো, বাংলাদেশ দলকে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। বিসিবি বলছে, ১৪ দিন নয়, ৭ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকবে টাইগার ক্রিকেটাররা।

বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ৩টি টেস্ট ম্যাচ খেলতে শ্রীলংকা সফরে যাওয়ার কথা বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের। প্রস্তুবিত সূচি অনুসারে চলতি মাসের শেষ সপ্তাহেই শ্রীলংকার উদ্দেশ্যে বিমানে ওঠার কথা।

কিন্তু তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ নিয়ে এখনো আনুষ্ঠানিক সূচি প্রকাশ করেনি শ্রীলংকা ক্রিকেট বোর্ড।

এদিকে জাতীয় দলের প্রস্তুতির জন্য একই সময়ে এইচপি দলের সফরও নির্ধারণ করেছিল বিসিবি। তবে শ্রীলংকা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের করোনা সংক্রান্ত নীতিমালার কারণে এইচপি দলের সফর নিয়ে শঙ্কা আগেই বেড়েছে।

জাতীয় দল ও এইচপি দলের ক্রিকেটার সহ বেশ বড় সংখ্যার একটা দল একসঙ্গে শ্রীলংকা সফরে যাওয়ার কথা। সেটা নিয়েই লংকান স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় আপত্তি তুলেছে। তার ওপর ১৪ দিনের কোরারেন্টিন ও অনুশীলন নিয়ে বেঁকে বসেছে লংকান স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। এসব কারণেই অনিশ্চিত হয়ে যায় এইচপি দলের সফর।

বিসিবি সভাপতি দেশের মাঠে খেলা ফেরানোর বিষয়ে বলেন, আমরা দেশের মধ্যে ক্রিকেট চালু করব বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সেটা হতে পারে ডিপিএল বা অন্য কিছু। তবে, ক্রিকেট ফেরাব। যেহেতু কোচরাও এসে গেছেন। খেলোয়াড়রাও অনেক দিন খেলার বাইরে। কোন প্রক্রিয়ায় ক্রিকেট ফেরাব সেটা পরে জানাব।