সুনামগঞ্জের দুই পক্ষের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ ৮, আটক ১২

প্রকাশিত: 7:11 PM, December 16, 2020
ছবি সংগৃহীত

ধলাই ডেস্ক: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের নাদামপুর গ্রামে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে কমপক্ষে ১৫ জন আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় আটজনকে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় ইউপি সদস্যসহ ১২ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, নাদামপুর গ্রামের যুক্তরাজ্য ফেরত সিরাজ মিয়ার সঙ্গে একই গ্রামের বাসিন্দা নজির হোসেনের বিভিন্ন সময় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বিরোধ চলছিল। মঙ্গলবার (১৫ ডিসেম্বর) গ্রামের এক মৃত ব্যক্তির চল্লিশ দিনের খাওয়া নিয়ে সিরাজ মিয়ার সঙ্গে নজির হোসেনের পক্ষের লোকজনের কথা কাটাকাটি হয়। যার জেরে বুধবার (১৬ ডিসেম্বর) বিকালে নজির হোসেনের লোকজন সিরাজ মিয়াকে লাঞ্ছিত করেন। এরপর সিরাজ মিয়ার পক্ষের লোকজন বন্দুক দিয়ে এলোপাতাড়ি গুলি ছু্ড়ে। এতে কমপক্ষে ১৫ জন আহত হয়। গুলিবিদ্ধ আটজনকে প্রথমে জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় পরে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল হাসপাতালে নেয়া হয়।

জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে চিকিৎসক শাহ আলম সিদ্দিকী জানান, গুলিবিদ্ধ আটজনকে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অন্যরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

জগন্নাথপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী জানান, সংঘর্ষের ঘটনায় একটি বন্দুক জব্দ করা এবং ১২ জনকে আটক করা হয়েছে।

সূত্র: জাগো নিউজ…